আইপিএলে আবার রেকর্ড সি.এস কে ধোনির! হেরে লজ্জার নজির রোহিত শর্মা মুম্বইয়ের

বেতার বার্তা ডিজিটাল ডেস্ক: খোকাবাবুর প্রত্যাবর্তন । দীর্ঘ ৩৭ দিন পর ক্রিকেট মাঠে ফিরেই অনবদ্য নজির গড়লেন চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি । প্রথম অধিনায়ক হিসেবে আইপিএলে ১০০টি ম্যাচ জিতলেন তিনি। এমন একটা পরিস্থিতিতে এই শততম জয় হিসাবে ধোনি ভক্তদের মনে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে চিরকাল ।

আসলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর মাহিকে প্রথমবার ক্রিকেট মাঠে দেখার জন্য অধীর অপেক্ষায় ছিলেন তাঁর ভক্তরা। ব্যাট হাতে তাঁর পুরনো ঝলক দেখার জন্য মুখিয়ে ছিল ক্রিকেট বিশ্ব। সুযোগের অভাবে সেটা না হলেও, নিজের মগজাস্ত্রের কেরামতিতে মাহি আরও একবার বুঝিয়ে দিলেন, কেন তাঁকে দেশের সর্বকালের সেরা অধিনায়কদের মধ্যে একজন বলে মনে করা হয়।
যেভাবে অপেক্ষাকৃত দুর্বল বোলিং লাইনআপ নিয়েও মুম্বইয়ের শক্তিশালী ব্যাটিং বিভাগকে ১৬৫’র নিচে বেঁধে ফেললেন। যেভাবে নিজের বোলারদের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে ব্যবহার করলেন, আবার ব্যাটিংয়ের সময় জাদেজা, কুরানদের মতো পিঞ্চ হিটারদের আগে পাঠিয়ে দিলেন, সবটাই মাস্টারক্লাস ছিল টানটান উত্তেজনা । সুনীল গাভাসকার তো বলেই দিলেন,”ধোনিই ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক।” টিম ইন্ডিয়ার কিংবদন্তি ওপেনারের কথায়,’ ধোনি সবসময় অধিনায়ক হিসেবে অসাধারণ। আমার মতে, ভারতের সর্বকালের সেরা ক্যাপ্টেন।ফলাফল ওর হয়ে কথা বলে। ও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে সমস্ত খেতাব জিতেছে। ভারতকে টেস্টে শীর্ষস্থানে নিয়ে গিয়েছে। তিনটি আইপিএল জিতেছে। একজনের কাছে আর চাই কী?’

 

মধুর প্রতিশোধ, চ্যাম্পিয়ন মুম্বইকে হারিয়েই ক্রিকেটে কামব্যাক স্মরণীয় করে রাখলেন ধোনি

শততম জয়ের পাশাপাশি ধোনির চেন্নাই মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে চলে আসা জয়ের খরাটাও এদিন কাটিয়ে ফেলেছে। টানা পাঁচ ম্যাচ হারার পর রোহিতদের হারাতে পেরেছে সিএসকে। অন্যদিকে মুম্বই আবার এদিনের হারের পর লজ্জাজনক নজির গড়ে ফেলেছে। টানা আট বছর আইপিএলের (IPL) প্রথম ম্যাচে পরাস্ত হয়ে আসছে তাঁরা। শেষবার আইপিএলে নিজেদের প্রথম ম্যাচ রোহিতরা জিতেছিলেন সেই ২০১২ সালে। শুধু তাই নয়, এর আগে আটবার আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচ খেলেছেন রোহিতরা, তার মধ্যেও হেরেছেন পাঁচটিতে। যদিও এসবে চিন্তিত নন রোহিত। তিনি বলছেন, টুর্নামেন্ট সবে শুরু, আমাদের শিখতে হবে আর এগতে হবে। আসলে মুম্বই চিরদিনই একটু স্লো স্টার্টার। টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় পর্বে অপ্রতিরোধ্য হয়ে যায় এই দল।