হযরত মুহাম্মদ ( সঃ ) কে অবমাননার প্রতিবাদে ফ্রান্স ছাড়ছেন ফুটবল তারকা পগবা

বেতার বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ  ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রো সরাসরি ইসলাম ধর্মের বিরোধীতা নেমেছেন সম্প্রতি একটি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের উৎস ইসলাম ।’

মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাই ওয়াসাল্লামকে নিয়ে কটূক্তি ও ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলছে মুসলিমবিশ্বে । বিশেষ করে এ ইস্যুতে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর এক বিতর্কিত মন্তব্যের পর প্রতিবাদ আরও জোরালো হয়েছে ।রাশিয়ায় ২০১৮ সালে ফ্রান্সকে দ্বিতীয় বিশ্বকাপ জেতাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন পগবা । ফ্রান্সের জার্সি গায়ে ৭২ ম্যাচ খেলে ১০ গোল করেছেন ২৭ বছর বয়সী এ মিডফিল্ডার পগবা ।

কাবা শরীফে পাগবা

আজ ফ্রান্স জাতীয় দল থেকে অবসর নিচ্ছেন মুসলিম তারকা ফুটবলার পগবা । আজ সোমবার এক অ্যারাবিক ওয়েবসাইটের বরাতে এমন এ তথ্য জানিয়ে খবর প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক গণমাধ্যম দ্য সান এবং ফুটবলভিত্তিক ক্রীড়ামাধ্যম কিক অফ।

ইসলাম ও নবী মুহাম্মদ (স.) প্রসঙ্গে ম্যাক্রোর বেশকিছু আপত্তিকর মন্তব্য ও কটাক্ষের জের ধরে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড তারকা পগবা এই সিদ্ধান্ত নেন বলে জানা যাচ্ছে । ক’দিন আগে ফ্রান্সে একটি স্কুলের ক্লাসে নবী মুহাম্মদ (স.) এর ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন নিয়ে আলোচনা করার পর হত্যাকাণ্ডের শিকার হন এক শিক্ষক। শুরু থেকেই ম্যাক্রো বলে আসছেন, এর পিছনে ইসলামি সন্ত্রাসীরা জড়িত । এর মাঝে নিহত শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটিকে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ সম্মানে ভূষিত করে তাদের দেশের সরকার। সেই সঙ্গে ইসলাম ও মুসলিমদের নিয়ে আরো সমালোচনা মুখর হন প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রো। তিনি দৃষ্টতার সঙ্গে জানিয়েছিলেন, ফ্রান্স নবী মুহাম্মদের ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন ছাপানো বন্ধ করবে না। এ সবের মধ্যে ফ্রান্সের একটি মসজিদ বন্ধ করে দেয় তাদের সরকার। এছাড়া প্যারিসে হিজাব পরা দুই মহিলাদের ওপর হামলা চলে। এ সবের কারণে ফ্রান্সের হয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ইসলাম ধর্মাবলম্বী পগবার বিদায় বলে জানা যাচ্ছে। যদিও এ ব্যাপারে ফ্রেঞ্চ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন পগবার অবসর নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানায়নি।

Comments