ভারতে গত ৩ মাসের মধ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে কম 

বেতার বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ  ভারতে ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৭৯ লাখ ছাড়িয়েছে । রবিবার সকাল ৮ টা থেকে আজ সোমবার সকাল ৮ টা পর্যন্ত ৪৫ হাজার ১৪৮ টি নয়া সংক্রমণ এবং একইসময়ে একইসময়ে ৪৮০ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। গত তিন মাসের মধ্যে একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা আজই সবচেয়ে কম। অন্যদিকে, গত ১০ জুলাইয়ের পর থেকে একদিনে মৃতের সংখ্যাও আজ সবচেয়ে কম।
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে প্রকাশ, দেশে এ পর্যন্ত মোট ৭৯ লাখ ৯ হাজার ৯৫৯ জন করোনা আক্রান্ত এবং ১ লাখ ১৯ হাজার ১৪ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত ৭১ লাখ ৩৭ হাজার ২২৮ জন সংক্রমণ মুক্ত বা সুস্থ হয়েছেন। বর্তমানে ৬ লাখ ৫৩ হাজার ৭১৭ জন সক্রিয় করোনা রোগী হাসপাতাল অথবা হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন আছেন।
এ পর্যন্ত ১০ কোটি ৩৪ লাখ ৬২ হাজার ৭৭৮ জনের করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। গতকাল (রোববার) ৯ লাখ ৩৯ হাজার ৩০৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। গত (শনিবার) ১১ লাখ ৪০ হাজার ৯০৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েহিল। বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৮.২৬ শতাংশ। সংক্রমণ মুক্ত বা সুস্থ হওয়ার হার বেড়ে ৯০.২৩ শতাংশ হয়েছে। গতকাল এই হার ছিল ৯০ শতাংশ। মৃত্যু হার সামান্য কমে ১.৫০ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।
ভারতে ১ লাখ করোনা সংক্রমণ হতে ১১০ দিন সময় লেগেছিল। কিন্তু এরপরে সংক্রমণের গতি বাড়তে থাকায় ২৭০ দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৭৯ লাখ ছাড়িয়েছে। গত ১৯ মে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১ লাখ ১ হাজার ১৩৯ জন। আজ ২৬ অক্টোবর আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭৯ লাখ ৯ হাজার ৯৫৯ জন।
অন্যান্য রাজ্যের পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ১২৭ জন সংক্রমিত হয়েছেন এবং একইসময়ে ৬০ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে এ নিয়ে মোট আক্রান্তের ৩ লাখ ৪৯ হাজার ৭০১ জনে দাঁড়িয়েছে। এরমধ্যে ৩ লাখ ৬ হাজার ১৯৭ জন সংক্রমণ মুক্ত বা সুস্থ হয়ে উঠেছেন। রাজ্যে এ পর্যন্ত মোট ৬ হাজার ৪৮৭ জন করোনা রোগী প্রাণ হারিয়েছেন। বর্তমানে ৩৭ হাজার ১৭ জন সক্রিয় করোনা রোগী বিভিন্ন হাসপাতাল অথবা হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন আছেন।

Comments