“জিতে আসি, কাউকে রেহাই নয়, ‘খেলা হবে” খানাকুলের মমতার হুঙ্কার

বেতার বার্তা নিউজ ডেস্কঃ  নুুর মোহাম্মদ, হুগলি, পশ্চিমবঙ্গের খানাকুলের ভোট প্রচারে বিজেপিকে তুলোধুনা করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। খানাকুলের বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস মনোনীত প্রার্থী নজিবুল করিমের সমর্থনে সভা করেন। সভা শুরুর আগে হাতে ফুটবল নিয়ে তিনি বলেন “খেলা হবে” সভাস্থল থেকে কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতৃত্বকে কড়া বার্তা দিলেন তিনি। মমতার হুঙ্কার, ‘বাংলায় নির্বাচন চলছে বলে শান্ত আছি। একবার ভোটে জিতে আসি, কাউকে রেহাই দেব না।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে তীব্র আক্রমণ করে মমতা বলেন, ‘নন্দীগ্রামে কী করেছে।   বিএসএফ, সিআরপিএফ তান্ডব চালিয়েছে। আমার একজন কর্মীকে অর্ধমৃত করে দিয়েছে। খানাকুলে এক তৃণমূল কর্মীকে মেরে ফেলেছে।

শুধু নির্বাচন চলছে বলে আমি শান্ত আছি। বিজেপির কাছ থেকে টাকা নিয়ে এখানে হিন্দু-মুসলমানে ভাগ করছে।  আমরা জাতপাতের রাজনীতি করি না।  এগুলো মাথায় রেখে হুগলি জেলা থেকে বিজেপিকে ছুড়ে ফেলে দেবেন।’   এদিন মমতা বিভিন্ন ইস্যু তুলে ধরে বিজেপিকে নিশানা করেছেন।   তবে বাম- কংগ্রেসকে সেভাবে আক্রমণ করেননি তিনি।

নন্দীগ্রামে তিনি জিতছেন বলে দাবি করেছেন। মমতা বলেন, ‘আমাদের সরকার গড়তে হবে। তবে আমি একা জিতলে হবে না।   আপনাদের সবাইকে জিতে আসতে হবে। আমি তো নন্দীগ্রামে জিতবই। কিন্তু তৃণমূলের প্রার্থীদের সবাইকে জিতে আসতে হবে। তবেই আমরা দু’শ আসন নিয়ে সরকার গঠন করতে পারব।   মনে রাখবেন বেশি আসনে জিততে হবে।   না হলে ওরা আবার টাকা দিয়ে গদ্দারদের কিনে নেবে।’  গত দশ বছরে কোচবিহারের জন্য কি কি করেছেন সেই ফিরিস্তি তুলে ধরেন মমতা।

তিনি বলেন, “নরেন্দ্র মোদি দেখে দেখে বাংলা পড়ে আমি গুজরাটি জানি হিন্দি কথা বলতে পারি, উর্দু না দেখে বলতে পারি রাজবংশী বলতে পারি” ‘কামতাপুরী, রাজবংশী ভাষাকে আমরা স্বীকৃতি দিয়েছি। রাজবংশী আবাস যোজনায় ১১০০ বাড়ি তৈরি করে দিয়েছি।  রাজবংশী ভাষায় লোকসংগীতের প্রসার ঘটিয়েছি।

খানাকুল হসপিটালের বেড সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে, রাজা রামমোহন রায় কলেজের নতুন বয়েজ হোস্টেল তৈরি হবে।   উদয়নারায়নপুর, আমতা এলাকার সঙ্গে খানাকুল কে যোগাযোগ স্থাপনের জন্য সেতুর ব্যবস্থা করা হয়েছে, রাস্তার যোগাযোগ করা হয়েছে।   বলেন, আমরা বিনা পয়সায় রেশন দিচ্ছি জুন মাস পর্যন্ত দেওয়ার কথা ছিল তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় থাকলে আজীবন রেশন বিনামূল্যে দেব।

Comments