সালানপুর ও ক্ষুদিকা গ্রামে প্রচার করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী বিধান উপাধ্যায়

বেতার বার্তা নিউজ ডেস্কঃ উজ্জ্বল, সালানপুর, বারাবনি বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী বিধান উপাধ্যায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটের প্রচার সারলেন সালানপুর ও ক্ষুদিকা গ্রামে। তৃণমূল প্রার্থী বিধান উপাধ্যায়কে সামনে পেয়ে সালানপুর,ক্ষুদিকা গ্রামের মানুষজন নিত্য সম্যসার কথা তুলে ধরেন এবং গ্রামের প্রতিটি মানুষজন প্রার্থী বিধান উপাধ্যায়কে আশ্বাসদেন দুঃখের সময়ে যেমন তিনি সর্বত্র গ্রামের মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন তেমনি পুরো গ্রাম তার পাশে রয়েছে।

গ্রামের এক বৃদ্ধ মানুষ যার নাম বাবু মণ্ডল দীর্ঘ দিন থেকে বুকের ব্যাথায় ভুগছিলেন,তিনি বলেন মাঝে শারীরিক অবস্থা খুব খারাপ হয়ে যায়, তখন বারাবনির ঘরের ছেলে তথা প্রাক্তন বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় নিজ উদ্যোগ নিয়ে আমাকে মিশন হাসপাতালে স্বাস্থ্য সাথী কার্ডের দ্বারা আমার ওপেন হার্ট সার্জারি করান। আমি এখন একটু সুস্থ রয়েছি।আমি এর জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সহ বিধান উপাধ্যায়কে যত ধন্যবাদ জানাই না কেনো সেটা কম হবে।

এই বিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী বিধান উপাধ্যায় বলেন সাধারণ মানুষের সমস্যাতো থাকবেই।কোথাও রাস্তা হয়েছে,জলের কল হয়েছে,কিন্তু নর্দমা হয়নি,আবার কারো বাড়ি হয়েছে তো শৌচালয় হয়নি,আবার কারো পানীয় জল সরবরাহের কল এখনো পর্যন্ত করা হয়নি,অনেক জায়গায় দেখা যাচ্ছে বেকার যুবকদের চাকরির সম্যসা রয়েছে।

মানুষের সম্যসা কোনো দিন সম্পূর্ণ ভাবে মেটানো যায়না,আমরা চেষ্টা করি যতটা সম্ভব উন্নয়ন করা যায়।কিন্তু গত দশ বছরে যা উন্নয়ন বারাবনি ও সালানপুর অঞ্চলে হয়েছে সেটা কেউ করতে পারেনি, তৃতীয়বার তৃণমূল কংগ্রেসের সরকার গঠন হওয়ার পর আরো উন্নয়ন হবে।

তাছাড়া এদিন নির্বাচনী প্রচারে উপস্থিত ছিলেন সালানপুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি মোঃ আরমান, সালানপুর ব্লক তৃনমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ভোলা সিং, সালানপুর পঞ্চায়েত প্রধান দীপিকা বাউরি, তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ফুচু বাউরি,বাপ্পা মণ্ডল, সুবীর নন্দী সহ আরো অনেকে।

Comments